1. [email protected] : amicritas :
  2. [email protected] : newsdhaka :
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ন

আরও ৬৯ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩৫৯

নিউজ ঢাকা প্রতিবেদক
  • শেষ আপডেট: রবিবার, ২ মে, ২০২১

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন আরও ৬৯ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেলেন ১১ হাজার ৫৭৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৩৫৯ জন। এর আগে একদিনে এর চেয়ে কম রোগী শনাক্ত হয়েছিল গত ১৪ মার্চ, এক হাজার ১৫৯ জন। আজকের এক হাজার ৩৫৯ জন নিয়ে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হলেন সাত লাখ ৬১ হাজার ৯৪৩ জন।

গত বছর ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হন। রেকর্ড ৭ হাজার ৬২৬ জন রোগী শনাক্ত হন গত ৭ এপ্রিল। গত ২৭ এপ্রিল রোগী সাত লাখ ছাড়িয়ে যায়।

দেশে প্রথম করোনা রোগীর মৃত্যুর হয় গত বছরের ১৮ মার্চ। গত ১৯ এপ্রিল একদিনে রেকর্ড ১১২ জনের মৃত্যু হয়। এটিই এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ মৃতের সংখ্যা। এপ্রিলের তৃতীয় সপ্তাহে টানা চার দিন মৃত্যুর সংখ্যা ছিল একশর ওপরে। এ বছর ১ মে রোগী সাড়ে ১১ হাজার পেরিয়ে যায়।

রবিবার (২ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৬৫৭ জন, আর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ছয় লাখ ৮৭ হাজার ৩২৮ জন।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগী শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৬৪ শতাংশ। আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ২১ শতাংশ, মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৪ হাজার ৪২টি, আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৪ হাজার ১৫৮টি। এখন পর্যন্ত দেশে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫৪ লাখ ৯৮ হাজার ৯৭৯। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৪০ লাখ ৫৫ হাজার ৮৬৮টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৪ লাখ ৪৩ হাজার ১১১টি।

দেশে বর্তমানে ৪২০টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এরমধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ১২৪টি পরীক্ষাগারে, জিন এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৩৪টি পরীক্ষাগারে এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ২৬২টি পরীক্ষাগারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৬৯ জনের মধ্যে পুরুষ ৪৪ জন, আর নারী ২৫ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেলেন আট হাজার ৪৩৪ জন এবং নারী ২৫ জন।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে বয়স বিবেচনায় ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ৪৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিন জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দুই জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন এবং শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে রয়েছেন একজন।

মারা যাওয়া ৬৯ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৩৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১৪ জন, রাজশাহী, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের একজন করে, খুলনা বিভাগের পাঁচ জন, বরিশাল বিভাগের সাত জন এবং রংপুর বিভাগের দুই জন।

এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ৪৮ জন এবং বেসরকারি হাসপাতালে ১৯ জন। বাসায় মারা গেছেন দুজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া দুই হাজার ৬৫৭ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৮৬৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৩৫৬ জন, রংপুর বিভাগের ২৩৯ জন, খুলনা বিভাগের ৪৬১ জন, বরিশাল বিভাগের ২৩৩ জন, রাজশাহী বিভাগের ৩১৮ জন, সিলেট বিভাগের ১৫২ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের ৩৪ জন।

অনুগ্রহ করে পোস্টটি শেয়ার করুন

এই ক্যাটেগরির অন্যান্য পোস্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *